এই নিয়মে কিসমিস খেলে কোটি টাকার উপকার পাবেন

0
233

বন্ধুরা আপনারা কি জানেন কিসমিসের পানি আমাদের স্বাস্থ্যের জন্য কত উপকারী জিনিস? যদি কিসমিসের পানি এবং ভেজানো কিসমিস খাওয়া যায় তাহলে এটা আমাদের বডিতে চমৎকার ভাবে উপকারীতা দিয়ে থাকে। আজকের পোস্টে আমরা জানবো কিসমিসের পানি কিভাবে তৈরি করবেন এবং কিসমিসের পানি আমাদের স্বাস্থ্যের জন্য কতটা উপকারী।

কিসমিস খাওয়ার নিয়ম ও উপকারিতা

আপনি যদি টানা কিসমিসের পানি সেবন করেন তাহলে আপনার শরীরে রক্ত স্বল্পতা দূর হবে এবং আপনার হজম শক্তি বেড়ে যাবে সেই সাথে আপনি আগে থেকে শরীরে অনেক বেশি এনার্জি পাবেন। আপনি কি জানেন কিসমিসের পানিতে এমন সব গুন রয়েছে যার জন্য অনেকে এটাকে সকালে খাবার পরামর্শ দিয়ে থাকে।

এটা সেবন করলে শরীরে থাকা খারাপ কোলেস্টেরল থেকে মুক্তি পাওয়া যায়। সেই সাথে এটা শরীরে ট্রাইগ্লিসিরাইসড কে কমিয়ে হজম না হওয়া এবং পেট রিলেটেড অন্য সমস্যাও দ্রুত ঠিক করে দেয়। কিসমিস একটি এন্টিঅক্সিডেন্ট জাতীয় খাবার সেজন্য হার্ট এবং লিভার এর সব সমস্যা জন্য আদিম আমল থেকে এটার ব্যবহার হয়ে আসছে।

কিসমিসের পানি আমাদের শরীরকে দ্রুত ডিটক্স করতে সাহায্য করে যার পুরো প্রভাব আমাদের কিডনি এবং লিভার এর ওপর পড়ে। অস্বাস্থ্যকর খাবার এবং বাইরের খাবার সহ মদ এবং তামাক পান করার ফলে আমাদের লিভারে ময়লা জমে যায়। এসব ময়লা এবং পঁচা জিনিস আমাদের লিভারকে ড্যামেজ করে দেয়। লিভারকে ড্যামেজ করার সাথে সাথে এটার প্রভাব আমাদের ত্বকের ওপরেও দেখা যায়।

কিসমিস খাবার সঠিক নিয়ম

এসব সমস্যার জন্য যদি আপনি টানা ৭ দিন কিসমিসের পানি সেবন করেন তাহলে শরীর দ্রুত ডিটক্স হয়ে যায় যার ফলে কিডনি এবং লিভার ভালো মত কাজ করে এবং ৭ দিনের মধ্যে শরীরে থাকা সব বিষাক্ত টক্সিন বাইরে বের হয়ে যায়। কিসমিস আমাদের হজম শক্তিকে বৃদ্ধি করে। কারন এটা আমাদের খাওয়া খাবারকে দ্রুত হজম করে থাকে এবং কিসমিসে থাকা পুষ্টি শরীরকে দ্রুত শোষন করতে সাহায্যে করে। আপনি যদি মাত্র ২ দিন কিসমিসের পানি পান করেন তাহলে আপনার পেটের সব সমস্যা দূুর হয়ে যাবে। পরিবর্তন ২ দিন পর আপনি নিজেই দেখতে পাবেন।

কিসমিসের পানি যেভাবে তৈরি করবেন

এটাকে বানানোর জন্য আমাদের দরকার হবে ২ গ্লাস পানি এবং ১৫০ গ্রাম এর মত কিসমিস। কিসমিস ভালো এবং কালো দেখে নিবেন সেই সাথে এটা যেন বেশি নরম বা শক্ত না হয়। সবার আগে কিসমিসকে ধুয়ে পরিস্কার করে নিন। এরপর ২ গ্লাস পানি একটি পাতিলে দিয়ে গরম করে নিন এবং এটাকে ভালো মত ফুটতে দিন। এরপর গ্যাস বন্ধ করে তার মধ্যে কিসমিস গুলো দিয়ে সারারাত রেখে দিন।

ভেজানো কিসমিস কিভাবে খাবেন?

এরপর সকালে উঠে এটাকে কুসুম-গরম করে পান করতে হবে। খেয়াল রাখবেন এটা খাবার ৩০ মিনিটের মধ্যে কোন জিনিস খাওয়া যাবে না। রক্ত পরিষ্কার এবং পেট যেন ঠিক মতো পরিস্কার হয় সেজন্য টানা ৪ দিন সকালে উঠে এভাবেই আপনাকে সেবন করতে হবে। এই চারদিন কোন ধরনের জাংফুড বা চর্বি তৈরি করে এমন খাবার খাবেন না। এই চারদিন যদি আপনি ফল এবং কাঁচা জিনিস সেবন করেন তাহলে এটা দ্বিগুন গতিতে কাজ করবে। যদি আপনি হার্ট এবং লিভার রিলেটেড বা ত্বকের কোন সমস্যা নিয়ে চিন্তিত তাহলে এই পদ্ধতিটা ট্রাই করে দেখুন। আপনার সব সমস্যা একেবারে গোড়া থেকে দূর হয়ে যাবে।

আমাদের চ্যানেল সাবসক্রাইব করুন

কিসিমিসের পানির উপকারীতা

কিসমিস আমাদের অসংখ্য উপকারীতা দিয়ে থাকে তার মধ্যে প্রধান উপকারীতা হলো

রক্ত স্বল্পতা দূর করে

কিসমিসে প্রচুর আয়রন রয়েছে যেটা আমাদের শরীরে রক্তের ঘাটতি পুরন করে থাকে।

ফ্যাটি লিভারের সমস্যা দূর করে

এটা ফ্যাটি লিভার এর জন্যও ভালো কাজ করে থাকে। কিসমিসের পানি রক্তকে পরিস্কার করে দেয়, আর যদি আপনার রক্ত পরিস্কার হয়ে যায় তাহলে আপনি অসংখ্য রোগ থেকে বেঁচে থাকতে পারবেন। মানে আপনার রক্ত পরিস্কার থাকলে আপনি প্রায় ৮০% রোগ থেকে বেচে থাকতে পারবেন৷

চেহারার উজ্জ্বল বাড়ায়

যদি আপনার চেহারায় পিম্পলস ওঠে, চুল পড়ে যায়, হার্ট অ্যাটাকের সমস্যা থাকে, মাথা ব্যাথার সমস্যা থাকে এই সব সমস্যা ঠিক হয়ে যাবে। সেই সাথে আপনার বডিতে আলাদা রকমের এনার্জি এনে দিবে এবং আপনি সব সময় ফ্রেস অনুভব করবেন।

কোলেস্টেরল সমস্যা দূর করে

এর পরের যে উপকারীতা রয়েছে সেটা হলো বডির হাই কোলেস্টেরলকে কিসমিস ঠিক করে থাকে। যারা নিয়মিত সকালে উঠে কিসমিসের পানি সেবন করে তাদের কোলেস্টেরল এর সমস্যা কখনোই হয় না।

যাদের হাই কোলেস্টেরল এর সমস্যা রয়েছে তারা নিয়মিত সকালে উঠে কিসমিস এবং সেটার পানি পান করুন আপনি দেখবেন কয়েক দিনের মধ্যে আপনার হাই কোলেস্টেরল নিয়ন্ত্রণে চলে আসবে।

হজমে সমস্যা দূর করে

সেই সাথে এটা শরীরে ট্রাইগ্লিসিরাইসড কে কমিয়ে হজম না হওয়া এবং পেট রিলেটেড অন্য সমস্যাও দ্রুত ঠিক করে দেয়।

আশাকরি আজকে থেকেই এই নিয়মে কিসমিস সেবন করলে আপনি অনেক সুস্থ থাকতে পারবেন।

নিয়মিত স্বাস্থ্য টিপস পেতে ভিজিট করুনঃ- আমাদের সাইটে

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর

আমাদের অন্য সাইটঃ- স্বাস্থ্য কথা

মস্তিষ্কের স্বাস্থ্য ভালো রাখার খাবার

রোজায় স্বাস্থ্য সুরক্ষায় পুষ্টিকর খাবার জরুরি

Leave a reply