রক্ত সল্পতা ও শারীরিক ও মানসিক দুর্বলতা দূর করতে যা খাবেন?

0
465

আপনার শরীরে যদি রক্ত স্বল্পতা সমস্যা থাকে তাহলে আপনার দুর্বলতা ক্লান্তি স্ট্রেস শক্তি হীনতা মাথা ঘুরে পড়ে যাওয়া অসংখ্য সমস্যা হতে পারে একটা বেশিরভাগ সময়ই রক্তে আয়রনের ঘাটতি কারণে হয়ে থাকে আপনার এমন সব সমস্যা থাকে তাহলে মনোযোগ দিয়ে শেষ পর্যন্ত থাকুন।

আজকে আমি আপনাদের এমন কিছু ডায়েট এর ব্যাপারে বলব যেগুলো সেবন করলে আপনার শরীরের রক্তের ঘাটতি পূরণ হয়ে যাবে শরীরে আয়রনের ঘাটতি পূরণ হয়ে যাবে । আপনার শরীরে যদি রক্ত স্বল্পতা সমস্যা থাকে তাহলে আপনি আরও অসংখ্য রোগে আক্রান্ত হতে পারেন । আমাদের দেশে বিশেষ করে মহিলাদের মধ্যে রক্তস্বল্পতা সমস্যা বেশি দেখা দেয় । তাহলে আসুন জানি কিভাবে আপনি আপনার শরীরের ঘাটতি পূরণ করবেন এবং সুস্থ জীবন যাপন করবেন

০১. আপেল, আনার এবং পেপে

আপনি যদি আপনার রক্তের ঘাটতি পূরণ করতে চান তাহলে আপনাকে তিনটি ফলাফল লিস্টে এড করতে হবে। আপনি যদি আপনার ডায়েটে রোজ আপেল আনার এবং পেপের মতো জিনিস অ্যাড করেন তাহলে আপনার শরীরে কখনোই রক্তস্বল্পতা সমস্যা হবে না । আপনি এই তিনটি ফল থেকে যেকোনো একটিকে রোজ সকালে উঠে খেতে পারেন। করে আপনি এগুলোর বেশি উপকারীতা পাবেন

Shot of a young woman looking stressed while using a laptop to work from home

০২. পালংশাক

এছাড়াও আপনি আপনার ডায়াল লিস্টে পালংশাক এড করতে পারেন । এই শাকটিকে আপনি সপ্তাহে কমপক্ষে দুই থেকে তিন দিন খাবেন কারণ পালং শাকে প্রচুর পরিমাণে আয়রন রয়েছে যেটা কিনা আমাদের শরীরের রক্তের ঘাটতি পূরণ করে থাকে আপনি পালংশাকের মতো আয়রন আর কোন সবজি তাই পাবেন না সেইসাথে এতে আরও অনেক ধরনের নির্দেশনা রয়েছে যেটা আপনার শরীরে কোন রোগ সারাতে সাহায্য করবে। সেজন্য এখন শীত কালিন সময় চলছে পালংশাক বাজারে পাওয়া যায় আপনি কি তাকে কিনে সপ্তাহে দুই দিন খেতে পারেন

০৩. মেথি

এছাড়াও আপনি মেথি সেবন করতে পারেন অথবা মেথির শাক সেবন করতে পারেন মাটিতে প্রচুর পরিমাণে আয়রন। যেটা আমাদের রক্তের গ্লুকোজের মাত্রা বাড়িয়ে থাকে এবং আমাদের শরীর থেকে আয়রনের ঘাটতি পূরণ করে আমাদের রক্তকে বৃদ্ধি করতে সহায়তা করে থাকে।

০৪. বালিশাক

এছাড়াও বালিশাক কে আপনি আপনার ডাটা লিস্টে এড করতে পারেন। বালি শাক আমরা হয়তো অনেকে চিনি না কিন্তু এটার অসংখ্য উপকারিতা রয়েছে। আপনি যদি এটা কি সেবন করেন তাহলে আপনার রক্তস্বল্পতা সমস্যা দূর হয়ে যাবে

০৫. কিসমিস

এছাড়াও আপনি কিসমিস কে আপনার ডায়াল লিস্টে এড করতে পারেন কিশমিশে প্রচুর পরিমাণে আয়রন রয়েছে যেটা আমাদের শরীরের রক্ত স্বল্পতা কে দূর করতে সাহায্য করে থাকে। আপনাকে যেটা করতে হবে রোজ রাতে ঘুমাতে যাবার আগে আট থেকে 10:30 গ্লাস পানির মধ্যে ভিজিয়ে রাখতে হবে তারপর সকালে উঠে সেটাকে পানিসহ সেবন করতে হবে এমনটা যদি আপনি করেন তাহলে মাত্র 10 থেকে 15 দিনের মধ্যে আপনার শরীর থেকে রক্ত স্বল্পতা সমস্যা দূর হয়ে যাবে

শুধুমাত্র রক্তস্বল্পতার সমস্যা নাই কিশমিশ সেবন করলে আপনার শরীরের দুর্বলতা ক্লান্তি স্ট্রেস দূর হবে এছাড়াও পুরুষের দুর্বলতা থাকে সেটা ঠিক করতে সাহায্য করে থাকবে পুরুষদের টেস্টেস্টেরন হরমোন বৃদ্ধি করবে সেই সাথে ভেতর শক্তি বৃদ্ধি করবে সেজন্য আজকে থেকে এই নিয়মে কিসমিস সেবন করা শুরু করেন।

০৬. পানি

সবার শেষে পানি স্বল্পতার কারণে আপনার শরীরের রক্ত স্বল্পতা সমস্যা দেখা দিতে পারে। আমাদের ডিহাইড্রেশনে কবলে পড়ে যায় তাহলে আপনার শরীরে অনেক ধরনের সমস্যা হতে পারে সে জন্য সারা দিনে কমপক্ষে 8 থেকে 10 গ্লাস পানি পান করুন। কারণ আমরা জানি আমাদের পুরো শরীর পানি দ্বারা গঠিত যদি শরীরে পানির ঘাটতি হয় তাহলে আমরা অনেক ধরনের রোগে ভুগতে পারি

Leave a reply