শিশুর খাবার তালিকা । ৬ মাস থেকে ৬ বছরের শিশুর খাবার তালিকায় কি রাখবেন?

0
469

আজকে আমরা জানবো ৬ মাস থেকে ৬ বছরের শিশুদের জন্য বিশেষ কিছু খাবার তালিকা যা খেলে শিশুর ভালো স্বাস্থ্য নিশ্চিত করা যাবে। যা শিশুর সম্পূর্ন পুষ্টি চাহিদা পূরন করবো। আজকে আমরা পুষ্টিকর ঘরে তৈরী খাবার তালিকা জানবো যা শিশুর ওজন এবং উচ্চতা বৃদ্ধিতে সাহায্য করবে এবং সেই সাথে শিশুর মস্তিষ্কের বিকাশে সহায়তা করবে।

আপনার বাচ্চা যদি ভাত বা অন্য কিছু ই খেতে না চায় তাহলে এই ডায়েট’টি একবার অবশ্যই দিয়ে দেখুন। কারন এতে রয়েছে চাল এবং কিছু প্রকারের পুষ্টিকর ডাল যা ভাত বা খিচুড়ি এর পরিবর্তে খাওয়াতে পারেন এবং এটা খেলে ভাত বা খিচুড়ি না খেলে চলবে। সেই সাথে এতে রয়েছে কয়েক রকম বাদাম যা আপনার শিশুর মস্তিষ্ক বিকাশ ঘটাবে এবং ওজন ও উচ্চতা বৃদ্ধিতে সহায়ক ভূমিকা পালন করবে।

শিশুদের বয়স অনু্যায়ী এটার মোট ৩টা স্টেজ আছে। আমরা ধাপে ধাপে সবগুলো ডায়েট বলবো

 

প্রথম ধাপ,

৬ মাসের শিশুর খাবার তালিকা

ছয় মাস – দশ মাস বয়সী শিশুদের খাদ্য তালিকা উপাদান :

১. বাসমতি চাল ( Basmati rice)
২. খয়েরি বাসমতি চাল ( Brown rice)
৩. নাজিরশাহী চাল (Najirshahi rice)
৪. পোলাও চাল (Polaw rice)
৫. মাসকালাই ডাল ( Mashkalai daal)
৬. মসুর ডাল (Masoor daal)
৭. মুগ ডাল (Mug daal)
৮. ওট্স্ (Oats)
৯. সাবুদানা ( Tropical pearls)
১০. গম (Wheats)
১১. চীনা বাদাম (Pea nuts)
১২. কাঠ বাদাম (Almond nuts)
১৩. তালমিস্রি ( Pulm suger)

দ্বিতীয় ধাপ,

১ বছরের শিশুর খাবার তালিকা

১১ মাস – ১৮ মাস বয়সী শিশুদের খাদ্য তালিকা ও উপাদান।

১. বাসমতি চাল ( Basmati rice)
২. খয়েরি বাসমতি চাল ( Brown rice)
৩. নাজিরশাহী চাল (Najirshahi rice)
৪. পোলাও চাল (Polaw rice)
৫. মাসকালাই ডাল ( Mashkalai daal)
৬. মসুর ডাল (Masoor daal)
৭. মুগ ডাল (Mug daal)
৮. ওট্স্ (Oats)
৯. সাবুদানা ( Tropical pearls)
১০. গম (Wheats)
১১. চীনা বাদাম (Pea nuts)
১২. কাঠ বাদাম (Almond nuts)
১৪. কাজু বাদাম ( cheshew nuts)
১৫. আখরোট ( walnuts)
১৬. পেস্তা বাদাম ( pistachio nuts)
১৭. তালমিস্রি ( Pulm suger)
১৮. ডাবলি (dabli)
১৯. ভুট্টা (corn)

তৃতীয় ধাপ,

২ – ৬ বছরের শিশুর খাবার তালিকা

১৮ মাস – ৬ বছর বয়সী শিশুদের খাদ্য তালিকা ও উপাদান।

১. বাসমতি চাল ( Basmati rice)
২. খয়েরি বাসমতি চাল ( Brown rice)
৩. নাজিরশাহী চাল (Najirshahi rice)
৪. পোলাও চাল (Polaw rice)
৫. মাসকালাই ডাল ( Mashkalai daal)
৬. মসুর ডাল (Masoor daal)
৭. মুগ ডাল (Mug daal)
৮. ওট্স্ (Oats)
৯. সাবুদানা ( Tropical pearls)
১০. গম (Wheats)
১১. চীনা বাদাম (Pea nuts)
১২. কাঠ বাদাম (Almond nuts)
১৪. কাজু বাদাম ( cheshew nuts)
১৫. আখরোট ( walnuts)
১৬. পেস্তা বাদাম ( pistachio nuts)
১৭. তালমিস্রি ( Pulm suger)
১৮. ডাবলি (dabli)
১৯. ভুট্টা (corn)
২০. কিসমিস ( Raisins)
২১. খোরমা খেজুর (Dry dates)
২২. রাজমা (Kidney beans)

 

Mother feeding her baby

উপকারীতা এবং পুষ্টিগুণ।

১.এটা শিশুদের ওজন বাড়ানোর জন্য সবচেয়ে ভালো খাবার।

২. শিশুদের শরীরের প্রয়জনীয় ক্যালরি বা শক্তি সরবরাহ করে।

৩. হজম শক্তি বৃদ্ধিতে সাহাজ্য করে।
৪. এগুলোতে প্রোটিনের পরিমান অনেক বেশি থাকে। যার ফলে শিশুর স্বাস্থ্য ভালো থাকে।
৫. সাগু এবং ওটস কোষ্ঠকাঠিন্য হতে দেয় না।
৬. ব্রাউন রাইসে রয়েছে প্রচুর পরিমান এ ফাইবার যা শরীরের বিভিন্ন অঙ্গের সঠিক গঠন নিশ্চিত করে, রোগ প্রতিরোগ ক্ষমতা বৃদ্ধি করে এবং শরীরের রক্ত চলাচল সাভাবিক রাখতে সাহায্য করে।
৭. বিভিন্ন ধরনের খনিজ পদার্থ, ফাইবার, প্রোটিন, ক্যারোটিন, ভিটামিন এ, ভিটামিন বি, ভিটামিন সি, ভিটামিন ডি, অ্যান্টি অক্সিডেন্ট, ক্যলসিয়াম, ম্যগনেসিয়াম, সোডিয়াম, পটাশিয়াম ফসফরাস, ফ্যট এবং প্রচুর পরিমান এ ক্যালরি থাকায় এগুলো শিশুর শরীরের সব রকম পুষ্টি চাহিদা নিশ্চিত করে।
৮. বিভিন্ন ধরনের বাদাম থাকার কারনে আপনার শিশুর মস্তিষ্কের সঠিক বিকাশ ঘটাবে, হাড় ও দাতকে মজবুত করে তুলবে এবং বাচ্চার বয়স অনুযায়ী সঠিক ওজন ও উচ্চতা বাড়াতে সাহায্য করবে।

যে কোনো প্রশ্ন থাকলে কমেন্ট করতে পারেন। ভাল থাকুক শিশুরা এবং সুস্বাস্থ্য নিয়ে বেড়ে উঠুক।

Leave a reply